নিজস্ব প্রতিবেদেক, পুরুলিরা: তিন দিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর বুধবার জঙ্গল থেকে উদ্ধার হল এক উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্রীর দেহ। এই ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পুরুলিয়া জেলার কাশিপুর থানার রামবনি গ্রামে। বুধবার সকালে ওই ছাত্রীর দেহ উদ্ধার হয় রামবনি গ্রাম সংলগ্ন এলাকার একটি জঙ্গলের মধ্যে থাকা পরিত্যক্ত বাড়িতে। ঘটনায় ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ উঠেছে ওই গ্রামেরই যুবক বুলেট সিং সর্দারের বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে কাশিপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত যুবক বুলেট সিং সরদারকে আটক করেছে। এই ঘটনায় ওই যুবকের ফাঁসির দাবিও জানিয়েছেন মৃত ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে পাওয়া সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, ওই ছাত্রীর বাবা অনেক দিন হল মারা গিয়েছে। সে রামবনি গ্রামে তার মামার বাড়িতেই মানুষ হয়। তার সঙ্গে বুলেটের দীর্ঘ প্রায় এক বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু দুই পরিবারের সদস্যরাই তাদের প্রেমের সম্পর্ককে অস্বীকার করে। এরপরই বিগত তিন দিন আগে নিখোঁজ হয়ে যায় বুলেট ও ওই ছাত্রী। দীর্ঘ খোঁজাখুঁজির পরেও তাদের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। ওই ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে স্থানীয় থানায় নিখোঁজ ডায়ারিও করা হয়। কিন্তু এদিন ভোরবেলা জঙ্গলের মধ্যে ওই ছাত্রীর মৃতদেহ দেখতে পান এলাকাবাসীড়া। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ওই ছাত্রীর দেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। সেখান থেকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় দেবেন মাহাতো সদর হাসপাতালে। ঘটনায় মৃতের পরিবারে নেমে এসেছে গভীর শোকের ছায়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here