নিজস্ব প্রতিবেদক, চুঁচুড়া: রবিবার রাতে এক ব্যক্তিকে গুলি করার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো হুগলি জেলার চুঁচুড়া সদর মহকুমার মগরা থানার হংসেশ্বরী রোড এলাকায়। গুলিবিদ্ধ ওই ব্যক্তির নাম শঙ্খদ্বীপ দত্ত। বাড়ি চুঁচুড়া থানার কেয়াটা এলাকায়। এই ঘটনায় পুলিশ সোমনাথ দাস নামে এক অভিযূক্তকে গ্রেপ্তার করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার শঙ্খদ্বীপ মামারবাড়িতে গিয়েছিল। রাতে হংসেশ্বরী রোড এলাকায় একটি মাচায় কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে বসেছিল শঙ্খদ্বীপ। সেখানেই সোমনাথ ও আরও এক যুবক পিছন থেকে তার কোমরে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এরপরই অভিযুক্ত ও তার সঙ্গে থাকা যুবক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

গুরুতর আহত অবস্থায় শঙ্খদ্বীপকে চুঁচুড়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার খবর দেওয়া হয় শঙ্খদ্বীপের কেওটার বাড়িতে। তার বাবা বলেন, ‘আমার ছেলের সঙ্গে কারও কোনও শত্রুতা ছিল না। কী করে এরকম হল বুঝতেই পারছি না।’ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনায় অন্য কেউ টার্গেট ছিল সোমনাথের। লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে গুলি লাগে শঙ্খদ্বীপের কোমরে। অভিযুক্ত সোমনাথ দাস কারও উপর প্রতিশোধ নিতে গিয়েই এই কাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে। শঙ্খদ্বীপের বক্তব্য, সে কলের কাজের জন্য বেশিরভাগ সময়ই মাসি ও মামারবাড়িতে যায়। ঘটনার দিন রাতে কাজ শেষে বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করছিল সে। হঠাৎই পিছন থেকে গুলি করে সোমনাথ।