news kolkata bengali
Highlights

  • সরাসরি ফোন যাবে স্থানীয় থানায় ও সাহায্য করতে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের কাছে
  • যারা সাহায্য করবেন তাঁদের পরিচয় যাচাই করা থাকবে
  • অ্যাপ প্রস্তুতকারক সদ্য ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করা প্রনীল হালদার

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বর্তমানে সমাজের কাছে সবচেয়ে বড় থ্রেট ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি, ইভটিজিং। নারী নিরাপত্তায় তাই অভিনব চিন্তা থেকে তৈরি হলো নয়া অ্যাপ্লিকেশন। তৈরি করলেন সদ্য ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করা এক যুবক। ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে ‘সহায়তা’ নামের অ্যাপটি। নেটিজেন থেকে সমাজের সকল স্তরের মানুষের সাধুবাদ কুড়োচ্ছেন অ্যাপ্লিকেশন প্রস্তুতকারক প্রনীল। নিরাপত্তা ‘সহায়তা’ হাতের মুঠোয় পেয়ে হাসি ফুটেছে মহিলাদের মুখেও। নয়া অ্যাপ পথচলা শুরু করেছে কলকাতা থেকেই।

বারবার ধর্ষণের ঘটনা ভাবিয়ে তুলেছিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রকে। মহিলা নিরাপত্তার জন্য কিছু করার চিন্তা অনেকদিন থেকেই ঘুরপাক খাচ্ছিল প্রনীলের মাথায়। হায়দরাবাদে পশু চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারে ৪ দুষ্কৃতী। তা নিয়ে উত্তাল হয়েছিল দেশ। অনেকেই নিজেদের ফোন নম্বর, বাড়ির ঠিকানা শেয়ার করেছিল সোশ্যালসাইটে। বলা হয়েছিল, কোনও মহিলা বিপদে পড়লে যেন নির্দ্বিধায় এইসব নম্বর বা ঠিকানায় যোগাযোগ করেন। কনসেপ্ট ভালো লেগেছিল ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের। কিন্তু সেই সঙ্গে মাথায় আরও এক বিপদের কথাও মাথায় এসেছিল তাঁর। সাহায্যের টোপ দিয়ে কেউ সুযোগ নিতে পারে, তাহলে নারী নিরাপত্তায় উপায় কী?

তা ভাবতে ভাবতেই নতুন এই অ্যাপ তৈরি করলেন প্রনীল হালদার। গুগল প্লে-স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে অ্যাপটি। ইন্সটল করে রেজিস্টার করলেই অ্যাক্টিভ হয়ে যাবে এই অ্যাপ। কোনও মহিলা বিপদে পড়লেই অ্যাপের বোতামে চাপ দিলেই সঙ্গে সঙ্গে কল যাবে থানায়। শুধু তাই নয় মেসেজও চলে যাবে স্থানীয় সহায়কদের কাছে। তবে পরিচয় যাচাই না করা পর্যন্ত কেউ সহায়ক হতে পারবেন না। পরিচয়পত্র যাচাই করার পরেই নিজেদের ঠিকানা ও যোগাযোগ নম্বর দিয়ে তবেই নারী নিরাপত্তার সহায়ক হতে পারবেন ইচ্ছুকরা।

কোনও বিপদ হলেই ছুটে আসবে পুলিশ ও সহায়কেরা। উদ্ধার করা হবে আক্রান্ত মহিলাকে। ধরা হবে দুষ্কৃতীকে। নেট দুনিয়া কুর্নিশ জানাচ্ছে অ্যাপ প্রস্তুতকারককে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারেন সহজেই। এই লিঙ্কে ক্লিক করে: সহায়তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here