kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশ্বের পাশাপাশি ভারতে ত্রাস সৃষ্টি করেছে করোনাভাইরাস এহেন পরিস্থিতিতে গোটা দেশে লকডাউন জারি করেছে সরকার পরিস্থিতি সামাল দিতে নিজের নিজের মত করে মাঠে নেমেছে রাজ্যগুলির। এমন একটা সময়েই এবার করোনা সামলাতে রাজ্যের যুব সম্প্রদায়কে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে স্বেচ্ছাসেবকের কাজে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে যুব সম্প্রদায়ের কাছে এই অনুরোধ জানান তিনি।

সম্প্রতি এক ভুয়া খবর রীতিমতো সারা ফেলে দিয়েছে রাজ্যে যেখানে দাবি করা হয়েছে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের এক ডাক্তার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই প্রসঙ্গেই মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিক বৈঠকে এই ঘটনার কথা উল্লেখ করে গুজব সৃষ্টিকারীদের কড়া ভাষায় হুঁশিয়ারি দেন মমতা। তিনি বলেন, ‘ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছেন যারা তাদের খুঁজে বের করতে রাজ্য পুলিশ, গোয়েন্দা বিভাগ এবং সিআইডি একযোগে কাজ করছে। আগুন নিয়ে খেলবেন না। এসব করলে পুলিশ ছেড়ে কথা বলবে না।’ এরপরই করোনা প্রতিরোধে যুব সম্প্রদায়কে রাজ্যের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করার অনুরোধ করেন তিনি। বলেন, গুজব না ছড়িয়ে এই রোগের মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়ান।যাদের স্বাস্থ্য ক্ষেত্র সম্পর্কে অভিজ্ঞতা আছে সেরকম কর্মহীন যুবরা চাইলে এই সময় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতে পারবেন। তারা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি আরো জানান রাজ্য সরকার সে ক্ষেত্রে নির্বাচিত স্বেচ্ছাসেবকদের দৈনিক আড়াইশো টাকা করে ভাতা দেবে।

অন্যদিকে কঠিন এ সময়ে পুলিশকেও মানবিক হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অত্যাবশ্যকীয় কাজের সঙ্গে যুক্ত কিছু ব্যক্তির উপরে অতি সক্রিয়তা দেখানোয় রাজ্য সরকার শাস্তিমুলক ব্যবস্থা হিসাবে ৮ জন পুলিশকর্মী ও আধিকারিককে ক্লোজ করেছে বলে মুখ্যমন্ত্রী তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বিভিন্ন জায়গা থেকে পুলিশের বিরুদ্ধে ১২টি অভিযোগ জমা পড়েছিল। পরে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মুখ্য সচিব রাজিব সিনহার নেতৃত্বে গঠিত টাস্ক ফোর্স রাজ্যের সব জেলা শাসকদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে কাজ করছে বলে তিনি জানান ।

ওষুধ , নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর যোগানে কোন সমস্যা নেই বলেও তিনি দাবি করেছেন এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে। পাশাপাশি করোনা সংক্রান্ত বিষয়ে গঠিত সরকারি ত্রাণ তহবিল সম্পূর্ণ আয়কর মুক্ত বলে ঘোষণা করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে এখনো পর্যন্ত পাঁচ হাজার থার্মাল গান পাওয়া গিয়েছে। এবং করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আগামী ৩১শে মার্চ পুনরায় পর্যালোচনা বৈঠক করা হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here