নিজস্ব প্রতিবেদক, ঘাটাল: বাবা-মা, ভাই-বোন, বন্ধুবান্ধব, আত্মীয়পরিজন সবাই পর। আপন শুধু প্রেমের জন। সেখানে ধাক্কা লাগলেই সঙ্গে সঙ্গে নিজেকে শেষ করে দেওয়ার মানসিকতা ক্রমশ বেড়ে চলেছে এই রাজ্যে। সেই তালিকায় তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েরাই বেশি। অনেকে তো এটাও ভুলে যাচ্ছে ভালবাসা এক তরফে হয় না, সেখানেও প্রত্যাখান আসতে পারে। যা স্বাভাবিক ভাবে মেনে নেওয়া উচিত বলেই রাজ্যের মনোবিদদের মতামত। কিন্তু শুনছে কে? প্রেমে প্রত্যাখান হলেই হয় পাল্টা আক্রমন নাহয় নিজেকে শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল থানার রাধানগর এলাকায় শনিবার এক যুবক গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়। মনে করা হচ্ছে প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়েই তার এই সিদ্ধান্ত।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত যুবকের নাম কুনাল দাস। বাড়ি ঘাটাল থানার নবগ্রাম এলাকায়। মৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি সুইসাইড নোট আর সেই সুইসাইড নোট থেকেই পুলিশ জানতে পারে প্রেম প্রত্যাখ্যানে আত্মহত্যা করেছে ওই যুবক। জানা গিয়েছে, কুনালের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে রাধানগর এলাকার প্রীতি চৌধুরী নামে একটি মেয়ের প্রেম ভালোবাসা ছিল। বেশ কয়েকদিন ধরেই কুনালের সঙ্গে প্রীতির সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছিল। আর এতেই কুনাল বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে স্থানীয়দের দাবি। কুনালের কাছ থেকে পুলিশ একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে। সেই সুইসাইড নোটে কুনাল প্রীতি ও তার পরিবারের জন্যই আত্মহত্যা করেছে জানিয়েছে। কুনালের পরিবারের পক্ষ থেকে ঘাটাল থানায় প্রীতি ও তার পরিবারের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। কুনাল এর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রীতি ও তার পরিবারের সদস্যদের খুঁজছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here