kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জম্যাটো কাণ্ড নিয়ে সরগরম দেশ। মুসলিম হওয়ায় জম্যাটো ফুড ডেলিভারি অ্যাপ থেকে খাবার নিতে চাননি মধ্যপ্রদেশের এক হিন্দু ব্যক্তি, অমিত শুক্লা। এইভাবে সরাসরি ধর্মের বিভেদ তুলে বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন ওই ব্যক্তি। তার বিরুদ্ধে আইনি নোটিসও পাঠিয়েছে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। তাকে নিয়ে যে বিতর্কের আগুন তাতে আরও ঘি ঢাললেন বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন। একবাক্যে ওই ব্যক্তির চরিত্র সামনে আনলেন তিনি।

ট্যুইটারে একটি পুরনো ছবি পোস্ট করেছেন লেখিকা, যেখানে এই একই ব্যক্তি যিনি ধর্মের নামে খাবারের অর্ডার বাতিল করেছেন অর্থাৎ অমিত শুক্লা তিনি তাঁকে চরম অশ্লীল মন্তব্য করেছেন। তসলিমা হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে তোলা তাঁর এক পুরনো ছবি পোস্ট করেছিলেন ২০১৩ সালে। সেই ছবিতে ব্যক্তি লিখেছেন,

‘আমি বলব আপনার স্তন খুব সুন্দর। মনে করি আপনার আমার এই মন্তব্য পছন্দ হবে।’

উল্লেখ্য, এই ব্যক্তির প্রোফাইলে বড় বড় করে ‘নমো সরকার’ লেখা। তাই দেখে বিরোধীরা ইতিমধ্যেই বিজেপি সরকারের ‘ভক্ত’দের মানসিকতা নিয়ে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে।

সেই ছবি এখন পোস্ট করে এখন তসলিমা লিখেছেন,

‘এই সেই ব্যক্তি যে জম্যাটোর অর্ডার বাতিল করেছিল নন-হিন্দু ডেলিভারি বয় বলে? সে নিজে কী মেয়েদের সম্মান করে? নাকি আমাকে সে অসম্মান করেছিল কারণ আমি নন-হিন্দু।’

উল্লেখযোগ্য ভাবে, এই নিয়ে সরব হয়েছেন টলিউড অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। তসলিমার ট্যুইটকে নিজে পোস্ট করে অভিনেত্রী লিখেছেন,

‘অমিত শুক্লা স্তনের প্রতি মোহগ্রস্ত। সেটা হিন্দু নারীর স্তন কি মুসলিম মহিলার স্তন, তা নিয়ে তাঁর কিছু এসে যায় না। কিন্তু যখন খাবারের প্রসঙ্গ আসে, তাঁর হিন্দু ডেলিভারি বয় চাই। এই ধরনের মানুষকে কি সব জায়গা থেকে বয়কট করা উচিত নয়?’

একে তো ধর্মের নামে খাবার বাতিল নিয়ে সরগরম হয়েছে গোটা দেশ। এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এবার বাংলাদেশি লেখিকার অভিযোগ আরও বেশি গুরুতর। একজন নারীকে এই ধরনের অশ্লীল মন্তব্য করা ব্যক্তি কীভাবে ধর্মের অজুহাত দেয়, হিন্দু ধর্মের মাহাত্ম্যের কথা বলে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ইতিমধ্যেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here